এ সময়কার ইসলামী আন্দোলনকে কেমন হতে হবে

সর্বশেষ

মতাদর্শগত করণীয়:

১. যুগোপযোগী তথা প্রাগ্রসর চিন্তার একাধিক গাইড বা মেন্টরকে অনুসরণ করা।

২. বিশেষ কোনো মডেলের পরিবর্তে আদর্শ ও মূলনীতিকে অধিকতর গুরুত্ব দেয়া। প্রয়োজনে নিজস্ব মডেল গড়ে তোলা।

৩. ব্যক্তির বাহ্যিক পরিবর্তন ও কর্মগত পরিশুদ্ধির পরিবর্তে মন-মানসিকতা ও চিন্তার উন্নয়নকে বেশি গুরুত্ব দেয়া।

৪. সমাজের আধ্যাত্মিক ও আঙ্গিক উন্নয়নের পাশাপাশি মজবুত বুদ্ধিবৃত্তিক ও সাংস্কৃতিক আবহ গড়ে তোলার উপর গুরুত্বারোপ করা।

৫. সুষম অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্যকে বাস্তব কর্মপদ্ধতি হিসাবে গ্রহণ করা।

৬. নারী সমাজ, শ্রমিক শ্রেণী ও অমুসলিম-আকীদাবিরোধী-সেক্যুলার লোকজনসহ দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীসমূহের ব্যাপারে ইতিবাচক ও উদার দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করা।

সংগঠন ব্যবস্থা সম্পর্কিত করণীয়:

১. গণমুখী সংগঠন কায়েম করা।

২. পেশা, ব্যক্তিগত ঝোঁক প্রবণতা, বয়স, যোগ্যতা ও এলাকাগত অবস্থানকে বিবেচনায় নিয়ে সাংগঠনিক ইউনিট কায়েম করা।

৩. দ্বীনি ও দাওয়াতী সংগঠন, সমাজসেবামূলক সংগঠন, বুদ্ধিবৃত্তিক সংগঠন, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, গণমাধ্যম সংগঠন, ছাত্র সংগঠন, শিক্ষক সংগঠন, ব্যবসায়ী সংগঠন, শ্রমিক সংগঠন ও রাজনৈতিক সংগঠনসহ সব সংগঠন ব্যবস্থাকে স্বায়িত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসাবে গড়ে উঠা ও কাজ করার জন্য পরস্পর পরস্পরকে সহায়তা (facilitate) করা।

৪. শক্তিশালী ও একক কেন্দ্রীয় সংগঠনের পরিবর্তে ‘ক্লাউড সার্ভার সিস্টেম’ বা ‘ওয়াইড গার্ডেন মডেল’ হিসাবে গুচ্ছ পদ্ধতির সংগঠন কায়েম করা।

৫. স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, নৈতিকতা ও গণমুখীনতাকে নেতৃত্বের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া।

পোস্টটির ফেসবুক লিংক

একটি মন্তব্য লিখুন

প্লিজ, আপনার মন্তব্য লিখুন!
প্লিজ, এখানে আপনার নাম লিখুন

নিজেকে একজন জীবনবাদী সমাজকর্মী হিসেবে পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিলসফি পড়িয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। গ্রামের বাড়ি ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম। থাকি চবি ক্যাম্পাসে। নিশিদিন এক অনাবিল ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখি। তাই, স্বপ্নের ফেরি করে বেড়াই। বর্তমানে বেঁচে থাকা এক ভবিষ্যতের নাগরিক।

সম্প্রতি জনপ্রিয়

আরো পড়ুন

ইসলামোফোবিয়ার সূত্র ধরে

ইসলাম-পছন্দ বা ইসলামপ্রিয় বা ইসলামপন্থী ভাই ও বোনেরা, আপনারা আল্লাহর ওয়াস্তে ‌‘ইসলামোফোবিয়া’ কথাটা আর বইলেন না। বলেন, ইসলামবিদ্বেষ। এভাবে দিনরাত ইসলামোফোবিয়া জপতে থাকলে আরো...

আন্দোলনের নতুন ধারা কেমন হওয়া উচিত

কাঙালের কথা বাসি হলেই ফলে। বলেছিলাম ‘রিফর্ম ফ্রম উইদিন’ হবে না। এখন সেটাই প্রমাণিত হলো। যারা রিফর্ম চেয়েছিলেন কিংবা এখনো চান, তাদের কর্তব্য হলো...

আপনি সাংগঠনিক সংস্কারের পক্ষে? আপনার জন্য পরামর্শ

৯৬-২০০১ সময়কালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরা একসাথে কাজ করেছি। চরম দুঃসময়ে। একজন ছাত্র অংগনের নেতা। ছিলেন উত্তর ক্যাম্পাসে। আরেকজন শিক্ষক নেতা। থাকেন দক্ষিণ ক্যাম্পাসে। পরবর্তীতে...