উপলব্ধি

হারিয়ে যাওয়ার মাধ্যমে
কেউ কেউ আমাদেরকে
বাহুল্য সম্পর্কের দায় থেকে
মুক্তি দিয়ে যায়।

পুরনো লোকদের সাথে
চাই না দেখা হোক।
আহতবোধ করি তাদেরকে দেখে।
মনে হয় তারা আটকে আছে
গণ্ডিবদ্ধ এক অনুর্বর অতীতে।

পূর্বতন-প্রিয়দের সাথে
দেখা না হলেই বরং ভালো।
তাতে করে সুখস্মৃতিটুকু অন্তত
বেঁচে থাকে।

কোনো এক সময়ে লিখেছিলাম,
নিহত সম্পর্কের চেয়ে
সম্পর্ক না হওয়াই ভালো।
তিক্ততার চেয়ে দূরত্ব যেমন শ্রেয়তর।

মেয়াদোত্তীর্ণ সম্পর্ককে
বোঝার মতো বয়ে বেড়ানো
বোকামি ছাড়া কিছু নয়।
যা শেষ হয়ে গেছে
তা অপসৃত হওয়াই কাম্য।
মৃত ব্যক্তিকে সসম্মানে সমাহিত করার মতো।

বিগত সময়কে বর্তমান ভেবে
প্রতারিত হয়ো না। শক্ত হও।
যা গেছে তা নিয়ে ভাবিত হয়ো না। ভুলে যাও।
মুছে দাও সব অযাচিত উপস্থিতি
তোমার জীবন থেকে।

অতীতের মতো করে কিংবা
সুন্দরতর এক বর্তমানকে গড়ে নাও।
স্মৃতিকাতর হয়ে কী লাভ?
চাইলেই তুমি পেতে পারো উন্নততর ভবিষ্যত।

স্মৃতির মায়াজালে আটকে থাকার চেয়ে
স্মৃতি-বিভ্রাট বরং কখনো কখনো ভালো।

তোমার ধারণার চেয়েও
জীবনের ক্যানভাস অনেক বড়, বিস্তৃত।
পুরনো ছবি হয়েছে বিবর্ণ, নিশ্চিহ্ন?
হোক। ক্ষতি কী?
জীবনের রংয়ে এঁকে নাও নতুন ছবি।

পিছুটান ভালো কিছু নয়।
জীবন মানে এগিয়ে যাওয়া।
যা পাওনি তা ভুলে যাও।
হাতের কাছে যা আছে
তা নিয়েই এগিয়ে যাও।
অস্বীকার করো নিহত অতীতকে।
সুখী হও আত্মনিষ্ট হয়ে।

 

০৪/১২/২০১৯
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

 

ফেইসবুক লিংক

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *